ফড়িং মিডিয়া – অনলাইন ডেস্ক: অভিবাসন কমাতে জারি করা নিষেধাজ্ঞার বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তোলায় যুক্তরাষ্ট্রের ভারপ্রাপ্ত অ‌্যাটর্নি জেনারেলকে বরখাস্ত করেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, সোমবার রাতে স্যালি ইয়েটসকে বরখাস্তের আদেশ আসে, যিনি নিয়োগ পেয়েছিলেন আগের প্রেসিডেন্ট ওবামার সময়ে।

যুক্তরাষ্ট্রের শরণার্থী কর্মসূচি চার মাসের জন‌্য স্থগিত এবং সাতটি মুসলিম দেশের নাগরিকদের ক্ষেত্রে কড়াকড়ি আরোপ করে যে নির্বাহী আদেশ প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প শুক্রবার জারি করেছেন, তা কার্যকর করতে বিচার বিভাগকে নিষেধ করেন ফেডারেল সরকারের সর্বোচ্চ আইন কর্মকর্তা ইয়েটস।

তিনি বলেছিলেন, ট্রাম্পের আদেশ আইনসম্মত কি না- সে বিষয়ে তিনি নিশ্চিত নন।ওই বক্তব্যের পরপরই টুইটারে ট্রাম্পের তীব্র প্রতিক্রিয়া আসে। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে এখনও ওবামার অ‌্যাটর্নি জেনারেল আছে।

‘নিখাঁদ রাজনৈতিক কারণে’ তার নিয়োগ করা কর্মকর্তাদের মনোনয়নে দেরি করিয়ে দিতে ডেমোক্রেটিক পার্টি কাজ করছে বলেও অভিযোগ করেন ট্রাম্প। এরপর হোয়াইট হাউজের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ইয়েটস বিচার বিভাগের সঙ্গে ‘বিশ্বাসঘাতকতা’ করেছেন। ইয়েটসের জায়গায় ভারপ্রাপ্ত অ‌্যাটর্নি জেনারেল হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে ভার্জিনিয়ার অ‌্যাটর্নি ডানা বোয়েন্তেকে।

নিউ ইয়র্কের ধনকুবের ডোনাল্ড ট্রাম্প ২০০৪ সালে এনবিসি টেলিভিশনে ‘দ্য অ্যাপ্রেন্টিস’ নামে একটি রিয়েলিটি শো শুরু করেন, যেখানে প্রতিযোগীদের পুরস্কার ছিল ট্রাম্পের প্রতিষ্ঠানে ব্যবস্থাপকের চাকরি। ওই সময় ট্রাম্পের কণ্ঠের ‘ইউ আর ফায়ারড’ ডায়ালগটি বেশ আলোচিত হয়ে ওঠে।

গত ২০ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিয়ে একের পর এক নির্বাহী আদেশে বিশ্বজুড়ে তুলকালাম বাধিয়ে দেওয়ার পর এই প্রথম কাউকে ‘ফায়ার’ করলেন ট্রাম্প।