ফড়িং মিডিয়া – অনলাইন ডেস্ক: বগুড়ার ধুনটে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে গোসাইবাড়ী ইউনিয়নের চরনাটাবাড়ী গ্রামের অষ্টম শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রীকে অপহরনের পর শ্ল¬ীলতাহানী করার অভিযোগ উঠেছে। এঘটনায় রবিবার বিকালে পুলিশ নিমগাছী ইউনিয়নের জয়শিং গ্রামের হাফিজুর রহমানের ছেলে শামিম হোসেন (২৫) নামের এক বখাটে যুবককে আটক করেছে।

এঘটনায় ওই ছাত্রী বাদী হয়ে আটককৃত শামিম হোসেনকে আসামী করে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। থানা পুলিশ ও স্থানীয়সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার গোসাইবাড়ী ইউনিয়নের চরনাটাবাড়ী গ্রামের জনৈক এক ব্যক্তির মেয়ে নাটাবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী। বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়ার পথে নিমগাছী ইউনিয়নের জয়শিং গ্রামের হাফিজুর রহমানের ছেলে শামিম হোসেন ওই ছাত্রীকে প্রায়ই উত্ত্যাক্ত করতো।

গত ২৮ মার্চ সকাল ১০টায় বিদ্যালয়ে যাওয়ার পথে ওই ছাত্রীকে সিএনজিযোগে অপহরন করে নিয়ে যায় শামিম হোসেন। এরপর বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বগুড়ার অজ্ঞাত একটি স্থানে ওই ছাত্রীকে আটকে রেখে জোড়পূর্বক শ্ল¬ীলতাহানীর চেষ্টা করে বখাটে শামিম। পরবর্তীতে ওই ছাত্রীকে ধুনট সদরপাড়া এলাকার তার আত্বীয়র বাড়ীতে রেখে পালিয়ে যায় সে।

কিন্তু লোকলজ্জার ভয়ে বিষয়টি ওই ছাত্রী গোপন রাখলেও ২৩ এপ্রিল আবারও তাকে বিদ্যালয় থেকে তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে বখাটে শামিম। এসময় স্থানীয় লোকজন তাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। এঘটনায় ওই ছাত্রী বাদী হয়ে আটককৃত শামিম হোসেনকে আসামী করে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। ধুনট থানার এস.আই খোকন কুন্ডু জানান, এক স্কুল ছাত্রীকে শ্ল-ীলতাহানী ও উত্ত্যাক্ত করার অভিযোগে এক যুবককে আটক করা হয়েছে এবং এবিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।